আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

ক্রিকেট

সিইও নয়, ‘হলে তো প্রেসিডেন্ট হওয়াই ভালো’

সাকিব আল হাসানের ধরণটাই এমন, হুটহাট চেয়ার নাড়িয়ে দেয়া কথা বলতে তিনি একটুও দ্বিধা করেন না। এইতো এবারের বিপিএল শুরুর ঠিক আগের দিন টুর্নামেন্টের অব্যবস্থাপনা, অনিয়ম নিয়ে রীতিমত বোমা ফাটিয়েছিলেন দেশ সেরা ক্রিকেটার। যা নিয়ে পুরো দেশজুড়ে শুরু হয় তোলপাড়।

সিইও নয়, বিসিবির প্রেসিডেন্ট হতে চান সাকিব

সিইও নয়, বিসিবির প্রেসিডেন্ট হতে চান সাকিব। ছবিঃ সংগৃহীত

বিপিএলকে আখ্যা দিয়েছেন ‘যা তা’ বলে এবং এই অধঃপতনের জন্য ম্যানেজমেন্টকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। এমনকি তিনি এও বলেছিলেন, ‘আমাকে যদি সিইওর দায়িত্ব দেওয়া হয়, আমার বেশি দিন লাগবে না। সব ঠিক করতে সর্বোচ্চ এক থেকে দুই মাস লাগবে।’

এছাড়াও বিপিএলের চাইতে ডিপিএলের মান বেশি ভালো বলেও মন্তব্য করেছেন সাকিব। এরপর টুর্নামেন্ট শুরু হয়েছে। ফরচুন বরিশালের হয়ে এক ম্যাচ খেলেছেনও বাংলাদেশ ক্যাপ্টেন। তবে তার সেই মন্তব্য নিয়ে আলোচনা এখনও থামেনি।

মাঝখানে অবশ্য কয়েক দফায় সাকিবের মন্তব্যের জবাবেও দিয়েছে বিপিএল কতৃপক্ষ। টুর্নামেন্টের গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান শেখ সোহেল বলেছিলেন, ‘আমি প্রথমে সাকিবকে স্বাগত ও ধন্যবাদ জানাই। সে যদি বিপিএলের সিইও হয়ে আসতে চায়, আমরা গভর্নিং বোর্ড থেকে তাকে স্বাগতম জানাই। সে যদি চায়, সামনের বছর থেকেই সিইওর দায়িত্বটা পালন করুক।’

তার আগে সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেছিলেন, ‘বিপিএল থেকে ডিপিএল অনেক ভালো বললেও সাকিব কিন্তু ডিপিএল খুব একটা খেলে না, বিপিএলই নিয়মিত খেলে।’

কতৃপক্ষের মুখে এমন মন্তব্য শোনার পর বিষয়টি আরও উত্তেজনাকর পরিস্থিতির দিকে এগিয়ে যায়। মানুষ এবার চেয়ে থাকেন এর জবাবে সাকিব কি বলেন সেদিকে।

অবশেষে সেই উত্তর সাকিব দিয়েছেনও। তাও আবার তার নিজস্ব স্টাইলে। রোববার একটি পণ্যের প্রচারণায় গিয়ে বেশ কয়েকটি প্রশ্নের মুখোমুখি হন সাকিব। তার মধ্যে একটি প্রশ্ন ছিলো, সত্যিই যদি বিপিএলের সিইওর দায়িত্ব নেওয়ার প্রস্তাব আসে, তিনি নেবেন কিনা? জবাবে তিনি মুচকি হেসে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার বলেন ‘হলে তো প্রেসিডেন্ট হওয়াই ভালো..।’

আরও পড়ুনঃ টানা ৩ ম্যাচ জিততে মাশরাফিদের টার্গেট ১৫০

এছাড়াও সম্প্রতি নেট মাধ্যমে একটা ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে মেহেদী হাসান মিরাজের সঙ্গে সাকিব পিচ নিয়ে কথা বলছিলেন, সেটিও ছিলো বিসিবিকে কোঠাক্ষ করে।

সম্প্রতি সাকিবের এমন অনেক মন্তব্যই সামনে আসছে, যার অধিকাংশই বিসিবির বিপক্ষে। অন্য যেকোনো খেলোয়াড় হলে এতক্ষণে নিশ্চিত শাস্তির মুখে পড়তে হতো। কিন্তু সাকিব বলেই কি বিসিবি চুপ বসে আছে?

এমন প্রশ্নের উত্তরে বিসিবি সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন, ‘এটা সঠিক সময় নয়। আমরা সুন্দর টুর্নামেন্টের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি, আশা করব আপনারা সহযোগিতা করবেন। এখন এ বিষয়গুলো গুরুত্বপূর্ণ না। আমাদের কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ সফলভাবে টুর্নামেন্ট শেষ করা।’

কিন্তু প্রশ্ন হলো, বিপিএল কি আসলেই সফলভাবে এগোচ্ছে?

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement

আরো দেখুন ক্রিকেট