আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

বিপিএল

শেষ হাসি কার – ইমরুল না সাকিবের?

আজ ১৮ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫ টায় বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের অষ্টম আসরের ফাইনালে মুখোমুখি হবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এবং ফরচুন বরিশাল। টুর্নামেন্ট জুড়ে দর্শকের জনপ্রিয়তার শীর্ষের দুই দলই শিরোপা জয়ের লড়াইয়ের মঞ্চে। তবে শেষ হাসি কার? কে হতে চলেছে এবারের বিপিএলের চ্যাম্পিয়ন দল? কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স নাকি ফরচুন বরিশাল? কার হাতে উঠতে চলেছে শিরোপা? শেরে বাংলায় ট্রফি উঁচু করে উল্লাসে মেতে উঠবেন কে? ইমরুল নাকি সাকিব? আর এসমস্ত প্রশ্নের জবাব মিলবে আজ রাতে, বিপিএলের ফাইনাল ম্যাচ শেষে।

ফাইনালের আগেই দুই দলের শক্তি আর দূর্বলতা সম্পর্কে ধারণা পেয়ে গেছে ক্রিকেট অনুরাগীরা। এইতো তিনদিন আগেই এই দুই দলই মুখোমুখি হয়েছিলো পরস্পরের। কিন্তু লো-স্কোরিং ম্যাচে কুমিল্লাকে ১০ রানে হারিয়ে প্রথম দল হিসেবে ফাইনালে উঠে যায় বরিশাল।

আর কোয়ালিফায়ার টু-তে চট্টগ্রামকে এক প্রকার উড়িয়ে দিয়েই জয় নিয়ে তৃতীয়বারের মত ফাইনালের মঞ্চে উঠে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

কোচ, ক্রিকেটার, ফ্র্যাঞ্চাইজি, বোদ্ধা-বিশ্লেষক, যেই হোন না কেনো সবাই এক কথায় মানতে রাজি টুর্নামেন্টের সেরা দুই দলই এবার বিপিএলের ফাইনালের মঞ্চে। কাগজে কলমে হোক, কিংবা মাঠের পারফরম্যান্স, যেদিক বিবেচনাই হোক না কেনো, এই দুই দল অবশ্যই এগিয়ে থাকবে অন্যদের তূলনায়।

কুমিল্লার ব্যাটিং শক্তি দুর্দান্ত হলে বরিশালের বোলিংয়েও রয়েছে ধার। দুই দলেই রয়েছেন তিনজন করে ভিনদেশী বিধ্বংসী খেলোয়াড়।

কুমিল্লার আছে ফাফ ডু প্লেসি, সুনিল নারিন আর মঈন আলি। তাদের পাশাপাশি রয়েছে দুর্দান্ত ওপেনার লিটন কুমার দাস, এবং সময়ের সবচেয়ে আলোচিত পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। প্রচুর সম্ভাবনাময় ফ্রন্টলাইনার মাহমুদুল হাসান জয়ও অত্যন্ত কার্যকর ভূমিকা পালন করছেন কুমিল্লার রয়েছে। ওদিকে অফস্পিনার নাহিদুল ইসলামও অন্যরকম ব্রেক থ্রু দিয়েছেন দলকে।

অপরদিকে বরিশালও কম যায় না কোনদিকে। বরিশালেও রয়েছে তিন বিদেশি। ক্রিস গেইল, ডোয়াইন ব্রাভো আর মুজিব উর রহমান। গেইল তার পূর্ব রুপে ফিরে যেতে না পারলেও যেকোন সময় মাঠে তুলতে পারেন ঝড়। ব্রাভো ব্যাট হাতে ভালো কিছু করতে না পারলেও বল হাতে তা পুষিয়ে দিচ্ছেন। আর মুজিব তার রহস্যময়ী বলে ধরাশায়ী করেছেন প্রতিপক্ষের অনেক খেলোয়াড়কেই। এছাড়াও বরিশালে রয়েছে তরুণ মুনিম শাহরিয়ার। পাওয়ার প্লেতে মুনিম শাহরিয়ারের ঝড়ো ব্যাটিং বরিশালের টপ অর্ডারে এনে দিয়েছে নতুন মাত্রা।

কিন্তু সব ছাড়িয়ে বরিশালকে যিনি এগিয়ে রাখছেন, তিনি আর কেউ নন, বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। অধিনায়কত্বের পাশাপাশি ব্যাট এবং বল হাতেও সম্মুখ নেতৃত্ব দিচ্ছেন বরিশালকে। ব্যাট কিংবা বল, যে কোনটাতেই প্রতিপক্ষ শিবিরে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার জন্যে সাকিব একাই যথেষ্ট।

ম্যাচ পূর্ববর্তী কুমিল্লার অধিনায়ক ইমরুল কায়েস, বরিশালের সহ অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান, বরিশালের কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন কিংবা কুমিল্লার কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দীন, কারোরই কথাতেই নিজ দলকে সেরা মনে করার বিষয় ফুটে উঠেনি।

সবার সুর একইরকম। জিততে পারেন যে কেউ। ফাইনালে হতে যাচ্ছে স্নায়ুর লড়াই। নিজেদের বুদ্ধিমত্তা, স্বাভাবিকতা, এবং পারফরম্যান্স ধরে যারা খেলতে পারবেন, জয় তাদেরই হবে। এখন দেখা যাক তাহলে শেষ হাসিটা কে হাসবে?

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement

আরো দেখুন বিপিএল