আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

ক্রিকেট

মিরাজের পর চট্টগ্রামের অধিনায়কত্ব হারালেন নাঈমও!

একের পর এক অধিনায়কের রদবদলের বিপিএলে এবার আবারো অধিনায়ক বদল হলো চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের। অধিনায়কের দায়িত্ব টা কি তবে খেলোয়াড়দের কাছে বোঝা মনে হচ্ছে, নাকি এই পালাবদল ইঙ্গিত করছে অভ্যন্তরীণ মত পার্থক্যের দিকে?

পয়েন্ট তালিকার তলানিতে থাকা সিলেট সানরাইজার্সের দলে অধিনায়কের পালাবদল লক্ষ্য করা যায় গতকালকের ম্যাচেই। মোসাদ্দেক হোসেন স্বেচ্ছায় দায়িত্ব ছাড়ায় অধিনায়কের দায়িত্ব গিয়ে পড়ে রবি বোপারার কাছে। এনামুল হক বিজয় অধিনায়ক হতে অপারগতা প্রকাশ করার ফলেই দায়িত্ব গিয়ে বর্তায় বোপারার হাতে।

আর এ ঘটনার ২৪ ঘন্টা না পেরোতেই আবারো রদবদল হয় চট্টগ্রামের অধিনায়কত্বে। এর আগে নানান বিতর্কের মাধ্যমে মেহেদী হাসান মিরাজের হাত থেকে চট্টগ্রামের অধিনায়কের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিলো নাঈম ইসলাম কে। আর আজ আবার নাঈম ইসলামের পরিবর্তে ফ্র্যাঞ্চাইজিটির নেতৃত্বে এসেছেন আফিফ হোসেন ধ্রুব। বিপিএল ইতিহাসের ৫০তম অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক হলো তার।

অথচ সিলেটে আজ অনুশীলনের সময়ও বোঝা যায় নি নেতৃত্বে পরিবর্তন আসছে চট্টগ্রামের। ঢাকার বিপক্ষে আফিফকে টস করতে দেখা গেলেই বিষয়টি পরিস্কার হয় সকলের সামনে।

এ ব্যাপারে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তারা কেউ কথা বলতে ইচ্ছা পোষণ করেন নি। টসের সময় আফিফের কাছ থেকে জানা যায়, নাঈম হোসেন অসুস্থ থাকার কারনে এ ম্যাচে খেলতে পারছেন না।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমেছে চট্টগ্রাম। অধিনায়কের দায়িত্ব থেকে পদচ্যুতির পর একাদশ থেকেও জায়গা হারিয়েছেন নাঈম। চট্টগ্রামে ঘরের মাঠে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে নাঈমের অধীনে তিন ম্যাচে শুধু একটি জয় পেয়েছে চট্টগ্রাম। ঢাকায় ফিরেও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কাছে হারে চট্টগ্রাম। অধিনায়ক হওয়ার পর নাঈমের পারফরম্যান্সও দেখা যায় মন্দা। শেষ চার ম্যাচে করেছেন মাত্র ১৯ রান (৩,০, ৮,৮)।

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement

আরো দেখুন ক্রিকেট