আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

ব্যক্তিগত আক্রোশেই শাস্ত্রীকে কোচ থেকে বাদ দেন গাঙ্গুলি

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর থেকে ভারতীয় দলের দায়িত্বে আর দেখা যায় নি রবি শাস্ত্রীকে। নতুন কোচ হিসেবে বর্তমানে দায়িত্ব পালন করছেন রাহুল দ্রাবিড়। তবে নতুন করে ধোঁয়াশা সৃষ্টি করছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক রশিদ লতিফ। তার দাবি, শাস্ত্রীকে প্রধান কোচের দায়িত্ব থেকে সরানোর পেছনে হাত রয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলির।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলের এক ভিডিওতে তিনি জানান, সৌরভ গাঙ্গুলিই ছিলেন শাস্ত্রীকে কোচিং থেকে সরানোর মূল নায়ক। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগেই শুরু হয়ে গিয়েছিলো প্রস্তুতি। আর তা বাস্তবায়ন হয় আরো পরে এসে।

তিনি বলেন, ‘অনিল কুম্বলেকে ভুলভাবে কোচের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার সময়ই সবকিছু শুরু হয়েছিল। শাস্ত্রী সম্ভবত কোনো কোচিং প্রশিক্ষণ নেননি। তার পরও সরাসরি কোচ হিসেবে যোগ দেন তিনি। কুম্বলের টেস্ট উইকেট ছিল ছয় শতাধিক। তাঁর সঙ্গী ছিলেন গাঙ্গুলি ও দ্রাবিড়।’

কুম্বলে, গাঙ্গুলি ও দ্রাবিড় খুবই শক্তিশালী জানিয়ে তিনি বলেন, এই ত্রিমূর্তি শক্তিশালী হওয়ায় গাঙ্গুলি শাস্ত্রীকে বলেছিলেন—বস, চলে যাওয়ার সময় হয়েছে। শাস্ত্রী হয়তো কোচ হিসেবে চালিয়ে যাওয়ার কথাই ভেবেছিলেন। কিন্তু এই পুরো প্রক্রিয়াটা শুরু হয়েছিল টি-বিশ্বকাপের আগে থেকেই।’

ব্যক্তিগত আক্রোশের কারনে ভারতীয় ক্রিকেট এখন হুমকির মুখে। এর অনেক কিছুই এখন জনসম্মুখে আসছে। আগেও যে খুব গোপন ছিলো এমন নয়। তবে খেলার এই জায়গাটিতে ব্যক্তিগত নয় বরং জাতীয় মনোভাব থাকাই শ্রেয়। পাকিস্তানের ক্ষেত্রেও এমনটা ঘটেছিলো নব্বইয়ের দশকে। এ বিষয়ে লতিফ বলেন, ‘ব্যক্তিগত আক্রোশের প্রভাব পড়েছে ভারতীয় ক্রিকেটে। নব্বইয়ের দশকের শুরুর দিকে পাকিস্তানের ক্রিকেটে যা হয়েছিল, এখন ভারতীয় ক্রিকেটে তেমনটাই ঘটছে।’

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement

আরো দেখুন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট