আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

বাটলার-হেলস ঘুর্ণিঝড়ে লণ্ডভণ্ড ভারত

খেলার আগে জস বাটলার বলেছিলেন, পাকিস্তান-ভারত ফাইনাল তিনি হতে দিবেন না। এবং খেলা শেষে ঠিকই তা করে দেখালেন। এলেক্স হেলসেকে সাথে নিয়ে এডিলেডে যেই ঘুর্ণিঝড় তুলেছেন, সেই ঝড়ে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে রোহিত শর্মার দল। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে, ১০ উইকেটে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে ভারত।

বাটলার-হেলস ঘুর্ণিঝড়ে লণ্ডভণ্ড ভারত

বাটলার-হেলস ঘুর্ণিঝড়ে লণ্ডভণ্ড ভারত। ছবিঃ সংগৃহীত

টস হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে, কোহলি ও হার্দিকের ব্যাটে ভর করে- ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬৮ রান সংগ্রহ পায় ভারত। শুরুতে মনে হয়েছে ছিলো, ম্যাচ জয়ের জন্য যথেষ্ট সংগ্রহ পেয়েছে গেছে টিম ইন্ডিয়া। কিন্তু না… এই ধারণা যে একদমই ভুল প্রমানিত হতে যাচ্ছে, ইনিংসের প্রথম বলেই চার মেরে তারই যেন ঈঙ্গিত দেন ইংলিশ ক্যাপ্টেন।

বাটলারহেলসের ব্যাটিং দেখ একবারও মনেই হয়নি, তারা ভারত কিংবা র‍্যাঙ্কিয়ে নাম্বার ওয়ান দলের বিপক্ষে খেলছে। চার-ছক্কা ছাড়া যেন কোনও কথাই ছিল না তাদের ব্যাটে। বাউন্ডারি-ওভার বাউন্ডারির বন্যায়, মাত্র ২৯ বলেই ইংল্যান্ডের স্কোরবোর্ডে পঞ্চাশ রান যোগ হয়ে যায়। একশত হয় মাত্র ৬১ বলে। এরপর মাত্র ২২ বলে হয় পরবর্তি পঞ্চাশ। অর্থাৎ ৮৩ বলেই স্কোরব্বোর্ডে ১৫০ রান তুলে নেয় ইংল্যান্ডের। শেষমেশ চার ওভার হাতে রেখে জিতে যায় ইংল্যান্ড।

আরও পড়ুনঃ ‘আমি কোচ হলে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মানসিক ডাক্তার দেখাতাম’

১৬ ওভারে ১৭০ রান করেছে তারা। এর মধ্যে ফিফটি তুলতে হেলস খেলেছেন মাত্র ২৮ বল, যেখানে ছিলো ৫ ছয় ও ১ চার। অন্যদিকে ৭ চার ও ১ ছয়ে ৩৬ বলে পঞ্চাশ স্পর্শ করেন বাটলার। যেহেতু আর কাউকে ব্যাট করার সুযোগ- এই দুই ব্যাটার দেননি, তাই ম্যাচ শেষে- হেলস অপরাজিত ছিলেন ৮৬ রানে, আর ৮০ রানে অপরাজিত ছিলেন বাটলার।

১৩ নভেম্বর বিশ্বকাপ শিরোপার উদ্দেশ্যে, পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামবে ইংলিশরা। এর আগে ২০১০ সালে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল, ক্রিকেটের জন্মদাতা এই দেশটি। এরপর ছয় বছর আগে ২০১৬ সালে খুব কাছে গিয়েও, ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হেরে রানার্সআপ হয় তারা।

অন্যদিকে দ্বিতীয় শিরোপার লক্ষ্যে খেলবে পাকিস্তানও। তাছাড়া এবারের বিশ্বকাপের সবকিছু যেন, অনুশরন করছে ৯২ বিশ্বকাপকে। আর সেই হিসাব করলে পাকিস্তান এগিয়ে থাকবে। তবে নিশ্চই ইংল্যান্ড চাইবে সেই হিসাব চুকিয়ে দিতে।

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement

আরো দেখুন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট