আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

ক্রিকেট

ফিলিপস-বোল্ট তাণ্ডবে বিধ্বস্ত শ্রীলঙ্কা

সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে আজ ব্যাটে বলে তাণ্ডব চালিয়েছেন গ্লেন ফিলিপস এবং ট্রেন্ট বোল্ট। সেই তাণ্ডবে নিউজিল্যান্ডের কাছে বিধ্বস্ত হয় এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা।

ফিলিপস-বোল্ট তাণ্ডবে বিধ্বস্ত শ্রীংলঙ্কা

ফিলিপস-বোল্ট তাণ্ডবে বিধ্বস্ত শ্রীলঙ্কা। ছবিঃ ইন্টারনেট

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই মুখ থুবড়ে পড়ে কিউই ব্যাটাররা। মাত্র ১৫ রানে ৩ উইকেট গিয়ে দলের টপ অর্ডার শেষ। তারপর মাঠে নামেন গ্লেন ফিলিপস।  কিউইদের খাদের কিনারা থেকে টেনে তুলতে চতুর্থ উইকেটে ড্যারিল মিচেলের সঙ্গে বাঁধেন ৮৪ রানের জুটি। 

২৪ বলে ২২ রান করে মিচেল ফিরলে, এরপর আর কারও সঙ্গই পাননি ফিলিপস। কিন্তু তবুও রানের চাকায় ব্রেক দেননি। ফলে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬৭ রান সংগ্রহ পায় নিউজিল্যান্ড। যেখানে ফিলিপসের সংগ্রহ ১০ বাউন্ডারি ও ৪ ছক্কায় ৬৪ বলে ১০৪ রান।

ফিলিপসের সেঞ্চুরিটি টি-২০ বিশ্বকাপ ইতিহাসের ১১তম সেঞ্চুরি এবং এ বিশ্বকাপের ২য় সেঞ্চুরি!

আরও পড়ুনঃ  সাকিব চেয়েছিলেন ‘হিরো’, পেয়েছেন ‘ভিলেন’!

এদিকে আজ দুর্দান্ত বোলিং করেছিলেন শ্রীলঙ্কান বোলাররা। কিন্তু ফিলিপসকে থামানোর অস্ত্র কেউই খুঁজে পাননি।

এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই চাপে পড়ে লঙ্কান ব্যাটাররা। টিম সৌদি আর ট্রেন্ট বোল্টের পাওয়ার প্লেতে ৪ উইকেট হারিয়ে মাত্র ২৪ রান তুলতে সক্ষম হয় তারা। নিয়মিত উইকেট বিরতিতে ১৯.২ ওভার খেলে ১০৫ রানে অল আউট হয় দ্বীপরাষ্ট্রের দলটি। ফলে ৬৫ রানের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে নিউজিল্যান্ড।

ব্যাটিংয়ে ফিলিপসের পর কিউইদের হয়ে বোলিং তান্ডব দেখান বোল্ট। ৪ ওভার করে মাত্র ১৩ রানে ৪ উইকেট তুলে নেন এই পেসার। সমান ওভার করে ১২ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন সাউদি। মিচেল স্যান্টনার ও ইশ সুধি নেন ২টি করে উইকেট।

লঙ্কানদের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৫ রান করেন অধিনায়ক দাসান শানাকা। এছাড়া ভানুকা রাজাপাকশে করেন ২২ বলে ৩৪ রান।

এ জয়ে ৩ ম্যাচ শেষে ৫ পয়েন্ট নিয়ে ‘এ’ গ্রুপের শীর্ষস্থান ধরে রাখলো নিউজিল্যান্ড। ২ পয়েন্ট নিয়ে শ্রীলঙ্কার অবস্থা পাঁচে।

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement

আরো দেখুন ক্রিকেট