আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

ক্রিকেট

ডিআরএস না থাকলেও বিতর্ক এড়াতে এডিআরএস

এবারের বিপিএলে ছিলোনা কোন ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম বা ডিআরএস। টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই এ ব্যাপারে নিজেদের অক্ষমতা প্রকাশ করেছিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। যার ফলস্বরূপ এবারের বিপিএলের ঢাকা পর্বে আম্পায়ারের বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়ে হয়েছিলো সমালোচনা।

এই সমালোচনার জের ধরেই টনক নড়ে আয়োজক কমিটির। ডিআরএস না হলেও এর বিকল্প নিয়ে চিন্তা করেছে বিপিএলের টেকনিক্যাল কমিটি। যার নাম দেওয়া হয়েছে এডিআরএস বা অলটারনেটিভ ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম। বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ খবর নিশ্চিত করেছে বিসিবি।

এ পদ্ধতি চালু হচ্ছে বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্বের দ্বিতীয় পর্বে। মূলত করোনার কারনে দক্ষ জনবল না পাওয়ায় ডিআরএস প্রযুক্তি রাখেনি আয়োজক কমিটি। তবে সবার অসন্তুষ্টিতে এবং সিদ্ধান্ত জটিলতার কারনে ২৬ তারিখ এক বিশেষ বৈঠক শেষে এডিআরএস প্রযুক্তির সিদ্ধান্ত নেয় টেকনিক্যাল কমিটি।

সেই বৈঠকে ৬ দলের অধিনায়ক, কোচ ও ম্যানেজাররা উপস্থিত ছিলেন। ছিলেন বিপিএলের গভর্নিং কাউন্সিলের প্রতিনিধি, প্রোডাকশন টিমের সদস্যরাও। উদ্ভব পরিস্থিতিতে যে প্রযুক্তি হাতের কাছে আছে তা দিয়েই রিভিউ সিস্টেম চালুর জন্যে সম্মত হয়েছেন সকলে।

এই এডিআরএস নিয়েই উঠতে পারে প্রশ্ন৷ কেমন করে কাজ করবে এই সিস্টেম। সংকটকালীন মুহুর্তে বিপিএলকে চলে যেতে হচ্ছে রিভিউ সিস্টেমের আদিযুগে।

হকআই সরবরাহকৃত বল ট্র্যাকিং প্রযুক্তি অনুপস্থিত থাকায় নিখুঁতভাবে এলবিডাব্লিউ নির্ধারণ করার জন্যে উইকেট টু উইকেট গ্রাফিক্যালি একটি ছায়া অঞ্চল তৈরি করে বলের গতিবিধি দেখা হবে।

বল স্টাম্পে আঘাত করছে কিনা সেটি বুঝতে তৈরি করা হবে স্বচ্ছ অঞ্চল। এছাড়া স্প্লিট স্ক্রিন ও সুপার স্লো মোশনেরও ব্যবহার করা হবে। স্নিকো মিটার বা আলট্রা এজ না থাকায় বল ব্যাটে লেগেছে কিনা সেটি বুঝতে ব্যবহার করা হবে স্টাম্প মাইক। সঙ্গে থাকবে তাৎক্ষণিক ভাবে ধারণকৃত ভিডিও ফুটেজ। হাতের কাছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি না থাকায়, যা করা সম্ভব তার সবকিছুই করবেন বিসিবি।

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement

আরো দেখুন ক্রিকেট