আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

ক্রিকেট

এভাবেও জেতা যায়, এখনো ঘোরের মধ্যে আছেন তামিম

আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের যে অবিস্মরণীয় জয়ের সাক্ষী হলো আজ ক্রিকেট বিশ্ব, তাতে আনন্দের সাগরে ভাসছে গোটা দেশ। মাঠে-পথে কিংবা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাধারণ জনগণের যেনো উচ্ছ্বাস ধরে রাখার মতো নয়। অথচ মাত্র ৪৫ রানে যখন ৬ উইকেটের পতন, তখন বাংলাদেশের হয়ে দল জিতবে এমন কথা বলার মানুষই ছিলো কম। এমনকি বাংলাদেশ জাতীয় দলের বর্তমান অধিনায়ক তামিম ইকবালও ভেবেছেন, এ ম্যাচ জেতা সম্ভব নয়।

আজ বুধবার আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে ৪ উইকেটে সফরকারী দলকে হারিয়ে সিরিজে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। ৪৫ রানে যখন ৬ উইকেটের পতন ঘটে, ২১৬ রানের জেতার পথে আর কোন উইকেট হারাতে হয়নি বাংলাদেশ জাতীয় দলকে।  সপ্তম উইকেটে আফিফ-মিরাজের রেকর্ড করা জুটিতে দল জয়ের আনন্দ পেলেও যেনো তামিম ঘোরের মধ্য থেকে বের হতে পারেন নি।

তামিম ইকবাল বলেন, ‘সত্যি বলতে আমি ভাবিনি জিতব, একদমই ভাবিনি। এখানে যদি আমি বলি আমি জয়ের বিশ্বাস রেখেছিলাম, মিথ্যা বলা হবে। ৪৫ রানে ৬ উইকেট পড়ে যাওয়ার পর ২১৬ তাড়া করা অনেক কঠিন।’

সেই কঠিন এবং অবিশ্বাস্য কাজকে সম্ভব করেছেন তরুন আফিফ হোসেন ধ্রুব এবং মেহেদী হাসান মিরাজ। সপ্তম উইকেটে ১৭৪ রানের অবিচ্ছিন্ন পার্টনারশিপে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন ক্রিকেট অনুরাগীদের। তামিম বিশ্বাস করেন, এই দুই জনের জয়গান তো সবে শুরু হলো। সামনে আরো ভালো করবেন।

তামিমের ভাষ্যমতে, ‘তরুণ দুইজন যেভাবে খেলল, অবিশ্বাস্য! আমি অনেক খুশি এবং গর্বিত। এটা চাট্টিখানি কথা নয়। আফগানিস্তানের দুর্দান্ত স্পিন অ্যাটাক আছে, তাদের যা দারুণভাবে সামলালো, এখান থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। আশা করব এটাই শেষ না। তাদের জন্য এটা কেবল শুরু। আরও অনেক ম্যাচ জিতবে তারা।’

ক্রিকেটে ধারাবাহিকতা বজায় রাখা একটা কঠিন কাজ। আর আজ যে অসাধ্য সাধন করেছেন আফিফ, মিরাজ, ভবিষ্যতেও তা বজায় থাকবে বলে আশা ক্রিকেট ভক্তদের।

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement

আরো দেখুন ক্রিকেট