আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

আগামী ৬ মাস সাকিবের টেস্ট খেলতে না চাওয়া নিয়ে ধোঁয়াশা

আবারো আলোচনায় সাকিব। তবে এবার আর নিজের কথায় নয়, বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের,  সাকিবের দেওয়া চিঠি সম্পর্কে টিভি চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাতকারে আবারো আলোচনায় উঠে এসেছেন তিনি। বিসিবি সভাপতি জানান, আগামী ৬ মাস কোন টেস্টই খেলতে চাচ্ছেন না সাকিব।

দুয়েক সপ্তাহ আগেও শোনা গিয়েছিলো সাকিব শ্রীলঙ্কায় খেললেও দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট খেলবেন না। আর তার কারন ছিলো আইপিএলে খেলা। তবে এখন যেহেতু সাকিব আর আইপিএলে যাচ্ছেন না, সেক্ষেত্রে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে সাকিব থাকবেন এটাই স্বাভাবিক ছিলো।

কিন্তু এখন আবার বাতাসে গুঞ্জন ছড়াচ্ছে, আগামী ছয় মাস সাকিব টেস্ট খেলতে চান না। আর তা নাকি তিনি বিসিবিকে চিঠির মাধ্যমে আগেই জানিয়ে রেখেছিলেন।

খোদ বিসিবি থেকেই সাকিবের টেস্ট খেলা নিয়ে বের হলো দুরকমের তথ্য। একবার বলা হলো আইপিএলের কারনে সাকিব দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্ট খেলবেন না, এখন আবার বলা হচ্ছে সাকিব আগামী ৬ মাসই টেস্ট খেলবেন না। এবং তিনি নাকি তা আগেই জানিয়ে রেখেছিলেন। তাহলে দুরকম বক্তব্য কেনো? যদি তিনি বিসিবিকে আগেই টেস্ট না খেলার কথা জানিয়ে রাখেন, তাহলে শ্রীলঙ্কা টেস্ট খেলার কথা বলা হলো কেন? আর এতেই তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা।

বিসিবি সভাপতি যেহেতু জানিয়েছেন, সাকিব টেস্ট খেলতে চাচ্ছেন না। সেখানে বিষয়টি পরিষ্কার, বোর্ড না জেনে অবশ্যই কথাটি বলেন নি। তারপরও বিষয়টি পরিষ্কার হওয়ার জন্যে সংবাদমাধ্যম থেকে যোগাযোগ করা হয় বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দীন চৌধুরী সুজনের সাথে। কারন তিনিই মূলত বিসিবির সমস্ত দাপ্তরিক কাজ পরিচালনা করেন।

বিসিবি সভাপতির এমন বক্তব্যে প্রশ্ন ছোঁড়া হলে, তিনি জানান, বোর্ড সভাপতি এমন কথা বলার মানে হচ্ছে তিনি সে বিষয়ে অবগত। না জেনে অবশ্যই তিনি সংবাদ মাধ্যমকে এমন কিছু সম্পর্কে অবগত করতেন না।

তাহলে কি সাকিব কে শ্রীলঙ্কা এবং দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট স্কোয়াডে দেখা যাচ্ছেনা? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘না না, এটাতো অনেক আগের কথা। এখন এগুলোই শেষ কথা নয়। দিস আর নট দ্য ফাইনাল ওয়ার্ড।’

তবে যা বলা হচ্ছে, তা আরো অনেকদিন আগের। এখন পরিস্থিতিও ভিন্ন। সাকিব যেহেতু আইপিএল খেলতে যাচ্ছেন না, সেহেতু তার শ্রীলঙ্কা এবং দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট খেলা নিয়ে কোন আপত্তি আছে কিনা সে বিষয়ে শেষ কথা সুজন বলেন,  ‘পরিবেশ পরিস্থিতির কারণে হয়তো বিষয়টি সাকিব নিজেই পুনর্বিবেচনা করবেন। হয়ত এটা নিয়ে আরও আলোচনা-পর্যালোচনা হবে। তারপর বলা যাবে শেষ পর্যন্ত কী হবে? তবে এখন আর ওই চিঠির কোনো মেরিট নেই।’

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement

আরো দেখুন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট